Sunday, April 22, 2018

Trinamool Congress (TMC) flexes their musscle by holding a rally at Bijanbari-Darjeeling. বিমল গুরুং এর গড়ে তৃনমূলে বিশাল জন সভা, পাহাড়ে উদ্দীপনা..




বিজনবাড়ির লোদোমা বাজারে (দার্জিলিং) ১৮ই এপ্রিল ২০১৮ নাগরিক  অভিনন্দন  সভা অনুষ্ঠিত হল তৃণমূল প্রভাবিত দার্জিলিং জল বিদ্যুৎ  কর্মচারী  সংগঠনের উদ্যোগে।



উপস্থিত ছিলেন শ্রীমতী  শান্তা ছেত্রী (সাংসদ),

স্বরুপ চট্টোপাধ্যায়  (সভাপতি,জলবিদ্যুৎ  কর্মচারী  সংগঠন)

প্রমোদ লাউয়াটি (কনভেনর, বিজনবাড়ি ব্লক তৃণমূল)

শ্রীমতী  ইয়োনজন  (কনভেনর, বিজনবাড়ি ব্লক তৃণমূল)

শানগ্যানডেন শেরপা  (সহ সভাপতি, বিজনবাড়ি ব্লক তৃণমূল)

ডিপি রাওয়ালি  (সাধারন সম্পাদক , বিজনবাড়ি ব্লক তৃণমূল)

মধুকর প্রধান ( সহ-সভাপতি,জল বিদ্যুৎ  কর্মচারী  সংগঠন)



এছাড়া শেরপা বোর্ড, লিম্বু বোর্ড,তামাঙ্গ বোর্ড, লেপচা বোর্ড,ভুটিয়া বোর্ডের প্রতিনিধি এবং অনেক বিশিষ্ট জনেরা উপস্থিত ছিলেন।






এই প্রথম বিমল গুরুঙ্গের গড় বলে পরিচিত  বিজনবাড়িতে সমতলের কোনো দল এত বড় সভা করল। সভাটি উপলক্ষে লোদমা বাজার সংলগ্ন  এলাকা তৃণনূলের ফ্লাগ। ফেস্টুনে ঢেকে গেছিলো।


সাংসদ শান্তা ছেত্রী তার বক্তব্যে বলেন স্থানীয় সমস্যা সমাধান ও WBPDCL এর ক্যাসুয়াল ও কন্ট্রাচুয়াল শ্রমিক স্থায়ী করনের লক্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করতে হবে। সাংসদ তৃণমূলে  নতুন যোগদান করা সকলকে স্বাগত  জানান।
সংগঠনের সভাপতি স্বরুপ চট্টোপাধ্যায় বলেন পাহাড় আমাদের  প্রিয় নেত্রী  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হৃদয় জুড়ে রয়েছে। তৃনমূল  উন্নয়নে বিশ্বাসী  তাই আমাদের  সংগঠন তৃণমূল কংগ্রেসের  সাথে সমন্বয়ের মধ্যমে শ্রমিক স্বার্থ  রক্ষায় স্বচেষ্ট থাকবে। সংগঠনের সহ সভাপতি মধুকর প্রধান বলেন আমাদের  সংগঠন শুধু জলবিদ্যুৎ  প্রকল্পের শ্রমিক  দের জন্য নয় সংগঠন এলাকার সাধারণ মানুষের জন্যও কাজ করবে।
দার্জিলিং  মহিলা তৃণমূলের সভানেত্রী সারদা রাই সুব্বা বলেন যে পাহাড়ের গর্ব এই যে মমতা ব্যানার্জী পাহাড়ের অভিভাবিকা। পাহাড়ের মানুষ তৃণমূলের সঙ্গে আছে। তিনি সরকারের কাছে অনুরোধ করেন যে পাহাড়ের আন্দোলনের সময় অনেক সাধারণ মানুষের নামে কেস হয়েছে সেগুলো যেন তুলে নেওয়া হয় যাতে তারা আবার রাজনিতির মুল স্রোতে ফিরতে পারে।
TMC's Rajyasabha MP Smt. Shanta Chhetri's address at Lodhoma - Bijonbari Block, Darjeeling District
YouTube link: https://youtu.be/pJUjxMYtZdE
TMC leader Saroop Chattopadhyay's address at Lodhoma - Bijonbari Block, Darjeeling District.
YouTube link : https://youtu.be/4SAcF_BUCmw
Please see other posts in this blog page by clicking "Home" or from "My Favorite Posts" / "Popular Posts" / "Archives" sections, and if any remarks please feel free to post.
Thanks & Vande Mataram!! Saroop Chattopadhyay.

Sunday, April 15, 2018

Bharatmata ki Jai.. A Bengali poem by Saroop Chattopadhayay in protest of Unnao, Surat, Jammu etc serial rape cases by BJP leaders & workers. ভারতমাতা কি জয় – স্বরূপ চট্টোপাধ্যায় এর একটি প্রতিবাদী বাংলা কবিতা, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিজেপি কর্মী ও নেতাদের দারা ধর্ষণের বিরুদ্ধে।



ভারতমাতা কি জয়

                                       স্বরূপ চট্টোপাধ্যায়

 

রে রে রে রে চারিদিকে শুধু চিৎকার,

জয় শ্রীরাম জয় শ্রীরাম জয় বজরঙ্গবলী।

ওরে ভক্তরা ভালো করে চেয়ে দেখ,

কোন ঘর কোন বাস বা কোন মন্দির, আছে কি খালি??

 

জয় শ্রীরাম ভারতমাতা কি জয়,  

আরে দেখ সেকুলারদের করছে ভয়।

ভক্তদের চাই শুধু একটি মেয়ে

হোক না সে শিশু, বালিকা, কিশোরী, যুবতী বা বৃদ্ধা;

হোক না সে কারোর চোখের মনি,  

ভক্তদের চাই শুধু একটি যোনি ।।

 

মেয়েদের শরীরের রক্তের এই দাগ,

পারবে তো ভক্তরা ভগবানের থেকে লুকোতে?

শিশু বালিকা বা যুবতী দের কবরে বসে,
 পারবে কি ভক্তরা তোমাদের স্বর্গে পৌছতে??  

 

 জয় শ্রীরাম ভক্তদের চাই শুধু একটি যোনী,  

প্রতিবাদ করলেই হয়ত বা জেলেই খুন;

কাশ্মীরের কাঠুয়া, গুজরাতের সুরাত বা ইউপির উন্নাও,

করছে ভয়, অথচ দেখছি টিভীতে বিজ্ঞ্যাপন

বেটি বাচাও বেটি পড়াও, কন্যা বাচাও……..

 

উন্নাওএর কন্যা সুরাতের বালিকা বা জম্মুর আসিফা..

কে যেন বলেছিল, সব আসিফাই আমার দুর্গা।

কিন্তু ভক্তরা যে দিয়েছে বিধান,

নো দুর্গা নো কালী কেবল জয় শ্রীরাম আর বজরঙ্গবলী।।

------------------------------------------------------------------------------------------------

Please see other posts in this blog page by clicking "Home" or from "My Favorite Posts" / "Popular Posts" / "Archives" sections, and if any remarks please feel free to post.
Thanks & Vande Mataram!! Saroop Chattopadhyay.

Monday, February 26, 2018

GRAMIN SWAROJGAR YOJONA (Haringhata) – An innovative project by West Bengal Government under guidance by Hon. CM Mamata Banerjee, for women empowerment & to make Bengal self sufficient for poultry products.

An article by Mr. Jayanta Sengupta.

The flagship scheme conceptualised by West Bengal Chief Minister Mamata Bandhopadhay has given women empowerment.

She decided to provide Ducks & Hens to the Women below the poverty line so that they can breed & earn money from them. An unique scheme which has been ridiculed by opposition, they did not & still don’t believe that this scheme has taken off.

Recently we went to Haringhata and saw the entire infrastructure of Haringhata Milk & Animal Husbandry used for this purpose. The infra was useless during the 34 years of Left Rule but now it has changed.

The entire process of number of stocks ( Ducks mainly) egg fertilisation hatching and nurturing the Ducklings are done with trained experts. Stocks are computerised , the food for Ducks ( Algae) were brought from South with high expense but now its grown there at a cost of Rs. 3.28 per kgs. The eggs which are not suitable for fertilisation are sold as Table Eggs.

This to counter the entry of eggs from different states. Below are some pictures which authenticate the scheme.

Joy Maa Mati Manusher Joy

Please see other posts in this blog page by clicking "Home" or from "My Favorite Posts" / "Popular Posts" / "Archives" sections, and if any remarks please feel free to post.
Thanks & Vande Mataram!! Saroop Chattopadhyay.

Monday, February 19, 2018

একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে কয়েকটি সোজসুজি প্রশ্ন... Some direct questions from an ordinary citizen of India to Prime Minister of India

লেখিকা শ্রীমতি শ্রীপর্ণা রায়
নরেন্দ্র মোদীর চার বছরের "রাম রাজত্বে" দেশের সাধারণ মানুষের সারা জীবনের সঞ্চয়ের ৩৫ হাজার কোটি টাকা পাঁচ জন শিল্পপতি দেশের মাটি থেকে বিদেশে চালান করে বহাল তবিয়তে বিদেশেই জমিয়ে বসেছেন.... 

১. ললিত মোদী .... ৭০০০ কোটি টাকা 
২. বিজয় মাল্য.... ৯০০০ কোটি টাকা 
৩. জতিন মেহতা...৬,৭০০ কোটি টাকা 
৪. নীরব মোদি... ১১,৫০০ কোটি টাকা 
৫. বিক্রম কোঠারী... ৮০০ কোটি টাকা


একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে কয়েকটি সোজসুজি প্রশ্ন... 

১. চার বছর আপনি ৮০ টি দেশ ঘুরেছেন আমাদের মতন সাধারণ দেশবাসীর করের টাকায়, অনেক ভাষন দিয়েছেন বিদেশের মাটিতে, অনেক ছবি/সেল্ফি তুলেছেন সেইসব দেশের রাষ্ট্রনায়কদের সাথে.... কিন্তু ভারতবাসীর টাকা মেরে যারা বিদেশে পালিয়ে গেলো আপনার জমানায় তাদের দেশে ধরে আনতে আপনি পারলেন না... তাহলে এত ঢক্কানিনাদ করে আপনার বিদেশ সফরের প্রয়োজন কী...?? আপনি বিদেশ থেকে দেশের কালো টাকা ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, সে তো দূর অস্ত, আপনি মশাই দেশের সাদা টাকা লুট হওয়াই রুখতে পারেন না, লুটেরাদের ধরে আনতে পারেন না... তাহলে আমাদের টাকা খরচ করে আপনার বিদেশ সফর কী এইসব লুটেরাদের আশ্রয় নেওয়ার নিরাপদ দেশ খোজার জন্য ...?? 

২. কী করে আপনার প্রধানমন্ত্রীর অফিস...?? প্রতিটি লুটেরার বিরুদ্ধে অভিযোগ আপনার দপ্তরে জমা পড়ার পরও কীভাবে এরা দেশ ছেড়ে পালাতে সক্ষম হয়...?? আপনার সাথে বিদেশে ছবি তোলার সাহস পায়...?? আপনার অফিস কী শুধু " মন কী বাত" আর আপনার ঝুটা ইমেজ বিল্ডিং এর জন্য...?? গুজরাট থেকে সব পছন্দের অফিসারদের এনে বসিয়েছেন নিজের অফিসে শুধু কী লুটেরা ছোটা-মোটা ভাইদের সেফ এস্কেপ রুট তৈরী করে দেওয়ার জন্য আর ২০১৪ সালের ৩ ডি ডিজিটাল "মোদী চালিশা" প্রচারের ৫০০০ হাজার কোটি টাকার কৃতজ্ঞতা স্বীকার করার জন্য...?? দেশবাসী আজ জানতে চায় মোদীজী....?? আপনার জবাব চাঁই...?? 

৩. আপনার সি বি আই, আপনার ই ডি , আপনার এস এফ আই ও, আপনার সেবি , আপনার আর বি আই.... কী কাজ করে...?? ঘটনা ঘটার পর যখন লুটেরা দেশের মাটি ছেড়ে বিদেশের মাটিতে পৌছান তখন নিশ্চিন্ত মনে প্রেস কনফারেন্স করে ঘটনার ইতিহাস ভুগোল বলেন তারা, তল্লাশী করেন লুটেরাদের প্রায় ফাঁকা করে নিয়ে যাওয়া বাসস্থান, কারখানা, দোকান ইত্যাদিতে , দু চারজন চুনোপুটি কর্মচারীকে গ্রেফতার করেন, আর এমন ভাবসাব দেখান যেনো কেস একেবারে তাদের হাতের মুঠোয়... তাহলে অভিযোগ জমা পড়ার পর কোন কেমিস্ট্রিতে তারা চুপ থাকেন...?? সব কিছু লুটেরারা কীভাবে ম্যানেজ করে নেয়...?? এইসব সংস্থাগুলির এত বড় বড় পরিকাঠামো তো শুধু দেশবাসী কে প্রতারণা থেকে উপযুক্ত নজরদারির মাধ্যমে আগে থেকেই সতর্ক করার এবং বাঁচানোর জন্য, তাহলে বারবার তারা এই কাজে ব্যার্থ হয় কী করে...?? কেনো প্রতিটি ঘটনায় এইসব কেন্দ্রীয় ইনভেস্টিগেশন সংস্থার ওপরতলার অফিসারদের সাথে লুটেরাদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা শোনা যায়...?? এর দায় কেনো আপনি নেবেন না...?? আপনি স্বচ্ছ ভারতের স্বপ্ন দেখিয়ে ক্ষমতায় এসে দেশের সবচেয়ে অস্বচ্ছ সরকার আমাদের উপহার দিলেন ... এর দায় নিয়ে আপনি পদত্যাগ করবেন না কেনো...?? 

৪. আজ যদি দেশের সব ঋণগ্রস্থ কৃষক বলেন যে তারা ঋণ শোধ করবেন না... যদি দেশের সব ঋণগ্রস্থ  ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ী বলেন যে তারা ঋণ শোধ করবেন না যতক্ষণ না পর্যন্ত দেশের এলিট শ্রেনীর শিল্পপতিরা তাদের ঋণ শোধ না করে, তাহলে আপনি সেই বিদ্রোহ সাম্‌লাতে পারবেন তো মিস্টার মোদী...?? যদি তারা বলেন আগে আপনি বিদেশে পাচার হওয়া এদেশের রাষ্ট্রায়ত্ব বাঙ্কের সাদা টাকা ফেরত নিয়ে আসুন , তাঁরপর আমরা আমাদের লোন শোধ করবো... কী করবেন আপনি...?? গুলি করে মারবেন তাদের, না বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে তাদের আত্মহত্যা করতে বাধ্য করবেন...?? যদি তারা লোন শোধ না করে তাদের দোষ দিতে পারবেন তো মোদী সাব... ?? নিজের বিবেকের কাছে প্রশ্ন করে দেখুন একবার...?? 

৫. লুটেরাদের একজন আপনার দলের মনোনীত সাংসদ ছিলেন, একজন আপনার দলের এক মুখ্যমন্ত্রীর এবং আপনার ক্যাবিনেটের একজন মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ ছিলেন, একজন আপনার অতি ঘনিষ্ঠ শিল্পপতি আদানীর জামাই,একজন তো আপনার সাথে একসাথে বিদেশে স্টেজ শেয়ার করেছেন এবং আপনার অর্থমন্ত্রীর ডেলিগেশন টিমে ছিলেন.... এসবের দায় আপনি নেবেন না...?? দেশবাসীর কাছে জবাব দেবেন না আপনার " মন কী বাত" অনুষ্ঠানে...?? এতবড় লজ্জাজনক ঘটনার পর আপনার কোনো টুইট নেই কেনো...?? আপনার নীরবতা কী আপনার লজ্জিত বিবেকের দংশন, নাকি নির্ভেজাল পলায়ন ...?? দেশবাসী জানতে চায় মিস্টার মোদী... হনুলুলুতে অতি বৃষ্টি হলে যিনি  সেকেন্ডের মধ্যে টুইট করেন, তিনি নিজের দেশের এতবড় দুর্ঘটনায় নীরব কেনো...?? একি "নীরবে" নীরব সমর্থন...?? জবাব চায় দেশবাসী.... 

প্রধানমন্ত্রী উত্তর দেবেন না জানি.... আবার ভাট বকা শুরু করবেন আগামী মন কী বাত অনুষ্ঠানে.... কিন্তু ভক্তগণ আপনাদের কাছে এর কী উত্তর আছে জানার খুব ইচ্ছা রইলো.... যদিও জানি এসব প্রশ্নের উত্তর দেওয়া আপনাদের কম্ম নয়...আপনাদের গোয়ালের সিলেবাসে গরু, মন্দির, মসজিদ, পাকিস্তান, মমতাজ বেগম ছাড়া আর কোনো চ্যাপ্টার ই যে নেই.... আপনাদের আর দোষ কী... ভালো থাকবেন আর অপেক্ষা করবেন ২০১৯ এর.... সব হিসেব সুদে আসলে বুঝে নেওয়ার জন্য।


Written by Sreeparna Roy
https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1096921853783874&id=100003982097974

For more details on Nirav Modi's  fraud please read our previous article:
“Nirob Modi “ on Nirav Modi. Why our SEVAK Modi is Nirob (silent) on NIRAV Modi?

Please see other posts in this blog page by clicking "Home" or from "My Favorite Posts" / "Popular Posts" / "Archives" sections, and if any remarks please feel free to post. 
Thanks & Vande Mataram!! Saroop Chattopadhyay.